৩:১২ পিএম, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৬ শাওয়াল ১৪৪০




কক্সবাজারে রামু’র বাকখাঁলী নদীতে পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রসহ নিহত

২৯ মে ২০১৯, ০৭:৪৯ পিএম | জাহিদ


এম.শাহ আলম, কক্সবাজার : কক্সবাজারে রামু’র বাকখাঁলী নদীতে গরু পারাপার করতে নেমে পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রসহ ২জন নিহত হয়েছে।   বুধবার দুপুরে বাকখাঁলী নদীর দক্ষিণ মিঠাছড়ি-খরুলিয়া ঘাটে নিহতের এঘটনা ঘটে।  

নিহতরা উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের উমখালী এলাকার সোলতান আহম্মদের পুত্র মোঃ শাহেদ (১৬) ও একই ইউনিয়নের দক্ষিণ পাড়ার মৃত হাবিব উল্লাহর পুত্র আমির হোসেন (২৮)।  নিহতদের মধ্যে শাহেদ দক্ষিণ মিঠাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নব্বম শ্রেণীর ছাত্র। 

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নিহত শাহেদ ও আমির হোসেন খরুলিয়া বাজারে গুরু বিক্রি করার জন্য বিলা সাড়ে ১১টার দিকে গরু নিয়ে অন্যান্য মানুষের মত গরু নিয়ে সাঁতার কেটে বাকখাঁলী নদী পার হচ্ছিল।  এমন সময় অন্যান্যরা সাঁতার কেটে পার হলেও শাহেদ এবং আমির হোসেন ডুবে যায়। 

পরে রামু ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনী ও স্থানীয়রা দীর্ঘ দের ঘন্টা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে দুপুর ১টার দিকে আমির হোসেনকে উদ্ধার করা হয়।  এর পর দীর্ঘ সাড়ে ঘন্টা খোঁজা খুঁজি করার পর বিকাল ৪টার দিকে স্কুল ছাত্র শাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

তবে নিখোঁজদের উদ্ধার তৎপরতা বিলম্ব হওয়ায় স্থানীয় দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনয়নের চেয়ারম্যান ইউনুছ ভুট্রো বিরুদ্ধে ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনীর সদস্যদের শারিরীক ভাবে মারধর করার অভিযোগ করেন দমকল বাহিনীর সদস্যরা।  তারা জানান, নদীতে স্কুল ছাত্রসহ ২জন নিখোঁজের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল বাকখাঁলী নদীর মিঠাছড়ি ঘাটে যায়। 

এসময় পানিতে নামতে প্রস্তুতি নিতে একটু বিলম্ব হওয়ায় চেয়ারম্যান ভুট্রো খরুলিয়া পাড় থেকে মিঠাছড়ি নদীর পাড়ে ডেকে গালিগালাজ করে মারধর করেন।  এর পরও নিখোঁজদের উদ্ধার অভিযান চালিয়ে মরদেহ উশুর করি।  এবিষয়ে উর্ধতন মহলকে জানানো হয়েছে।  

এবিষয়ে দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনয়নের চেয়ারম্যান ইউনুছ ভুট্রো জানান, গরু নিয়ে বাকখাঁলী নদী পারাপারের সময় ২জন লোক নিখোঁজ রয়েছে।  তাদের উদ্ধার কারার জন্য দমকল বাহিনীর সদস্যরা টাকা খোজেন।  এই নিয়ে তাদের সাথে সামান্য কথা কাটাকাটি হয়।  তবে চেয়ারম্যান দমকল বাহিনীকে মারধরের কথা অশিকার করেন। 

রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আবুল মনসুর জানান, বাকখাঁলী নদীর মিঠাছড়ির ঘাটে সাঁতার কেটে গরু পারাপারের সময় পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রসহ ২জন নিখোঁজ হওয়ার পর দমকল বাহিনী ও স্থানীয় লোকজন দীর্ঘ উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে নিখোঁজদের মরদেহ উদ্ধার করেন।  তবে দমকল বাহিনীর সদস্যদের মারধরের কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। 


keya