৬:২৪ পিএম, ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ২৩ শাওয়াল ১৪৪০




নেত্রকোণায় নৌ-ঘাটে টুল আদায়ের নামে চাঁদাবাজিার অভিযোগ

৩১ মে ২০১৯, ০১:০৪ এএম | জাহিদ


জাহাঙ্গীর আলম, নেত্রকোণা : নেত্রকোণায় নৌ-ঘাটে টুল আদায়ের নামে চলছে চাঁদাবাজি।  হুমকি ধমকি দিয়ে ব্যাবসায়িদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে আসছে রওশন ট্রেডার্স নামে প্রতিষ্টানের মালিক নাজিম উদ্দিনের বিরুদ্বে।  কোন নৌ মালিক প্রতিবাদ করলে তাদেরকে আর ঐ ঘাটে ব্যাবসা করতে দিচ্ছেন না।  তাদের সাখে দুঃব্যাবহার করার অভিযোগ রয়েছে।  বিষয়টি প্রমানিত হলে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়ার কথা জানান উপজেলা প্রশাসন। 

নেত্রকোণার সদর উপজেলার মেদনি ইউনিয়নের বড়ওয়ারী নৌঘাট।  উত্তরে দূর্গাপুর উপজেলার সুমেম্বরী নদী থেকে নৌকায় করে বালু নিয়ে এসে ব্যাবসায়িরা বিভিন স্থানে ইমারত নির্মনের সোনালী রঙ্গের বালু বিক্রি করে।  বড়ওয়ারী নৌঘাটে বালু বিক্রি করতে এসে চাঁদা বাজির শিকার হন বালু ব্যাবসায়িরা। 

ট্রক ড্রাইভার আরিফ, নৌকার শ্রমিক হোসেন মিয়া, দৌলত খানের ম্যানেজার নজরুল ইসলাম, এলাকাবাসী মেহেদি হাসান মামুন ও মিষ্টার মিয়া তারা জানান, সরকারী নির্ধারিত ২০০ টাকা করে আদায়ের কথা থাকলেও রওশন ট্রেডার্স নামে প্রতিষ্টানের মালিক নাজিম উদ্দিনসহ তার লোকজন প্রতিটি নৌকা থেকে দেড় হাজার, দুই হাজার, আড়াই হাজার টাকা।  নাজিম উদ্দিনের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট হয়ে ব্যাবসায়ী সুমন খাঁ মেদনী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান নোমান এর সুপারিশ ক্রমে নেত্রকোণা সদর উপলো নির্বহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।  

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, নেত্রকোণা, সুমনা আল মজিদ জানান, অভিযোগটি গতকাল (২৯-০৫-১৯) বিকেলে আমার কাছে এসেছে।  আমি সদর সহকারী কমিশনার ভূমিকে অবৈধ ভাবে টাকা নেওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য বলেছি। 

০১৭১৩-৫০২-১০২ নাম্বারে রওশন ট্রেডার্সের মালিক নাজিম উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে সময় ক্ষেপন করে তিনি ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি নন। 

সটিক খাজনা আদায়ে প্রশাসন পয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিয়ে চাঁদা বাজির হাত থেকে রক্ষার দাবি বালু ব্যাবসায়িদের। 


keya