৯:৪২ পিএম, ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার | | ২০ শাওয়াল ১৪৪০




শব্দ দূষণে বাড়ছে শারীরিক ও মানসিক নানা সমস্যা

১১ জুন ২০১৯, ০২:২৪ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম : শহুরে যান্ত্রিক জীবনে প্রতিনিয়তই বাড়ছে শব্দদূষণ।  শব্দ দূষনের ফলে বধিরতার পাশাপাশি বাড়ছে শারীরিক ও মানসিক নানা সমস্যা। 

ক্রমাগত বাড়তে থাকা শব্দের মাত্রা আগামীতে অসুস্থ প্রজন্মের জন্ম দেবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।  তাই দূষণ নিয়ন্ত্রণে এখনই কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ তাদের। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুসারে, ৬০ ডেসিবেল শব্দ মানুষকে সাময়িকভাবে বধির করে ফেলতে পারে। 

আর ১শ ডেসিবেল সৃষ্টি করে সম্পূর্ণ বধিরতা।  সেখানে ভয়েস মিটারে ধরা পড়ে ঢাকা শহরের যেকোন ব্যস্ত সড়কে শব্দ সৃষ্টির মাত্রা ৬০ থেকে ৮০ ডেসিবেল।  যা মানব স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। 

পরিবেশ অধিদপ্তরের সাম্প্রতিক এক জরিপ বলছে, ইতিমধ্যে দেশের প্রায় ১২ শতাংশ মানুষের শ্রবনশক্তি কমেছে। 

শব্দ দূষণের শিকার হতে পারেন যেকোন বয়সী মানুষ।  তবে সবচেয়ে ঝুঁকিতে শিশুরা। 

চিকিৎসকরা বলছেন, শব্দ দূষণের ফলে শ্রবনশক্তি কমা ছাড়াও মানুষ উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগসহ নানা স্বাস্থ্য সমস্যায় আক্রান্ত হয়।  

শব্দদূষণ একটি নিরব ঘাতক হওয়ায় বাইরে থেকে টের পাওয়া যায়না ভয়াবহতা।  তাই উদাসীন না হয়ে এ দূষণ প্রতিরোধে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।