৮:৩১ পিএম, ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার | | ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪০




বিতর্ক আর পিছু ছাড়ছে না প্রয়াত ব্যান্ড তারকা আইয়ুব বাচ্চু’র গড়া ব্যান্ডদল ‘এলআরবি’র।

২২ জুন ২০১৯, ০৮:১১ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম : বিতর্ক আর পিছু ছাড়ছে না প্রয়াত ব্যান্ড তারকা আইয়ুব বাচ্চু’র গড়া ব্যান্ডদল ‘এলআরবি’র। 

বাচ্চুর মৃত্যুর পর থেকে একের পর এক সমস্যা তৈরি হচ্ছে দেশের অন্যতম সেরা এই ব্যান্ডটি নিয়ে। 

এর আগে গত ৫ এপ্রিল ব্যান্ডটির জন্মদিনে রাজধানী থার্টি থ্রি রেস্টুরেন্টে বাচ্চুর অবর্তমানে এলআরবি’র ভোকাল হিসেবে বালামের নাম ঘোষণা করা হয়।  এর দশ দিন যেতে না যেতেই ব্যান্ডটির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় ‘বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি’।  

এরপর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় সমালোচনার ঝড়।  এতে আপত্তি করে তীব্র নিন্দায় জানায় আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার।  পরবর্তীতে বাচ্চুর পরিবারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে ফের ব্যান্ডটির ‘এলআরবি’ নামটিই চূড়ান্ত করা হয়। 

এর ফলে বেশ কিছুদিন এলআরবি নিয়ে পরিবেশ নিরব ছিলো।  কিন্তু আবার বির্তকের দেখা দিয়েছে জনপ্রিয় এই ব্যান্ডটিতে। 

হ্যাঁ, এলআরবি’র সদস্যরা এখন দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যাচ্ছেন! এরইমধ্যে ব্যান্ডটির অন্যতম সদস্য স্বপন ও রোমেল আলাদাভাবে শো করা শুরু করে দিয়েছেন।  শো’তে থাকছেন না ব্যান্ডের অন্যান্য সদস্যরা।  

এ বিষয়ে এলআরবি’র অন্যতম সদস্য সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার শামীম আহমেদ জানান, সাইদুল হাসান স্বপন ভাই এলআরবি’র প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য।  সেই সম্মানটা ওনাকে অবশ্যই করি।  কিন্তু বাচ্চু ভাইয়ের সম্মান নষ্ট করতে চাইনি বলে ওনার সঙ্গে আমাদের বোঝাবুঝিতে সমস্যা হচ্ছে।  ২১ জুন গুলশানের ক্যাডেট কলেজ ক্লাবে স্বপন-রোমেল ভাইয়েরা একটি শো করেছে।  এ বিষয়ে আমাদের জানাননি। 

এর কারণ জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, বাচ্চু ভাইয়ের নাম বিক্রি করে আমরা পেট চালাতে চাই না।  এলআরবি ক্ষেত ব্যান্ড না।  আমাদের ২০/২৫ হাজার টাকার শো করতে হবে কেনো? এ বিষয়গুলো নিয়ে আপত্তি করায় তারা আমাদের এড়িয়ে চলছেন।  এর বেশি আর কিছু বলতে চাচ্ছি না। 

এই বিষয়ে জানার জন্য এলআরবি’র প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য স্বপনকে ফোন দিয়ে পাওয়া যায়নি। 

গত বছরের ১৮ অক্টোবর এলআরবি’র প্রধান ব্যান্ড তারকা-সঙ্গীতশিল্পী আইযুব বাচ্চু পৃথিবীর মায়া ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে যান। 

১৯৯০ সালের ৫ এপ্রিল এলআরবি গড়ে তোলেন আইয়ুব বাচ্চু।  প্রথম ব্যান্ডটির নাম রাখা হয়েছিলো ‘লিটল রিভার ব্যান্ড (এলআরবি)।  পরবর্তীতে ১৯৯৭ সালে এই নাম বদল করে রাখা হয় ‘লাভ রানস ব্লাইন্ড (এলআরবি)’।  


keya