৬:৪৫ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার | | ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




মোড়েলগঞ্জে ছেলের অপরাধ মায়ের ওপর এ কেমন নির্যাতন!

২৭ জুন ২০১৯, ১০:২৫ এএম | নকিব


এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে মাসুদা বেগম(৪৫) নামে এক বিধবা গৃহিনীর ওপর পাশবিক নির্যাতন করেছে দুর্বৃত্তরা। 

কিশোর ছেলের ‘অপরাধে’ তাকে রাস্তায় ফেলে পেটানো হয়েছে।  গুরুতর আহত মাসুদা বেগম এখন মোড়েলগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। 

রবিবার বিকেলে বহরবুনিয়া ইউনিয়নের সিরাজ মাস্টারের বাজারে বসে দিনমজুর শ্রেণির ওই গৃহিনীকে প্রকাশ্যে মারপিট করা হয়।  ঘটনার পরে গৃহিনীকে তার কিশোর ছেলে নাইম(১৩) ট্রলারে তুলে হাসপাতালে নিয়ে যায়।  

হাসপাতালের কর্মকর্তা ডা. কামাল হোসেন মুফতি বৃহস্পতিবার সকালে বলেন, মাসুদা বেগমের উভয় পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে অনেক গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।  তার আরো উন্নত চিকিৎসা দরকার।  

চিকিৎসাধীন মাসুদা বেগম বলেন, ‘আমার ছেলের সাথে বাহাদুরের ছেলের ঝগড়া হয়েছে।  তার জের ধরে বাহাদুর খানসহ ৪-৫ জনে মিলে বাজারে বসে আমার চুলের মুঠি ধরে পিটিয়ে রাস্তায় শুইয়ে ফেলে।  পরে কি হয়েছে আর জানিনা’।  ছেলে নাইম বলেন, ‘শুক্রবার আমাকে মারপিট করেছে।  রবিবার বাজারে শাহারাফ খানের দোকানের সামনে বসে আমার আম্মুকে পিটিয়ে অজ্ঞান করে রাস্তায় ফেলে রাখে’।  

অভিযুক্ত স্থানীয় ঘের ব্যবসায়ী বাহাদুর খান বলেন, ‘ছোটখাট একটি ঘটনা ঘটেছে।  তবে তা চেয়ারম্যানের মাধ্যমে মিটমাটের চেষ্টা চলছে’।  

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঘটনাস্থলের এক ব্যবসায়ী বলেন, মাসুদা বেগমকে রাস্তায় ফেলে গরুর মত পেটানো হয়েছে।  

চেয়ারম্যান রিপন তালুকদার বলেন, মাসুদা বেগমের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।  এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে মিমাংসার কোন কথা হয়নি।  

এ বিষয়ে থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি।   অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বলেন, থানার ওসির সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  জনবল ও অর্থ সংকটের কারনে মাসুদা বেগম মোড়েলগঞ্জ হাসপাতালে পড়ে আছেন।  এখনো তিনি হাটাচলা করতে পারছেন না।