১১:৪৮ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার | | ২০ জ্বিলকদ ১৪৪০




পরস্পর বিরোধী বক্তব্য আওয়ামী লীগের গ্যাসের দাম বৃদ্ধি নিয়ে

০৩ জুলাই ২০১৯, ১০:০৪ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম :  গৃহস্থালিসহ সব পর্যায়েই আবারও বেড়েছে গ্যাসের দাম।  দাম বাড়ানোর হার ৩২ দশমিক ৮ শতাংশ।  রবিবার বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে এই দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়া হয়। 

আবাসিক এক চুলার গ্যাসের দাম ৭৫০ থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৯২৫ টাকা।  দুই চুলায় ৮০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৯৭৫ টাকা করা হয়েছে।  

তবে গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন আওয়ামী লীগ ও ১৪ দল নেতারা।  গ্যাসের দাম বাড়ানোর পেছনে যৌক্তিকতা দেখিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।  তবে তিনি বলেছেন, দাম না বাড়িয়ে সহনীয় পর্যায়ে রাখতে সরকারকে অনুরোধ করেছে ১৪ দল।  

এদিকে, জোটের মুখপাত্র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মো. নাসিম বলেছেন, গ্যাসের দাম বাড়ালে জনমনে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। 

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি।  এক ইস্যুতে আগামী ৭ জুলাই হরতাল আহ্বান করেছে বামদলগুলো।  এছাড়া গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো তাদের বক্তব্য তুলে ধরেন।  

এদিকে, মঙ্গলবার সকালে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ানোর পেছনে যৌক্তিকতা রয়েছে। 

তিনি বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ানোর পেছনে যৌক্তিক কিছু কারণ আছে যেটা গণমাধ্যমে জানানো হয়েছে।  এ নিয়ে বিএনপি যদি হরতালের ডাক দেয় সেটা তাদের বিষয়।  তবে মনে হয় না জনগণ তাতে সাড়া দেবে। 

অন্যদিকে, একইদিনে সাম্প্রতিক বিষয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সভা করে কেন্দ্রীয় ১৪ দল।  এসময় ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম জানান, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিতে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।  এর পেছনে অশুভ শক্তি কাজ করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

তিনি বলেন, বাজেট পাশ হওয়ার পর গ্যাসের দাম বাড়ানোর কারণে জনগণের মনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।  গ্যাসের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখা হলে জনগণের মনে কোনো প্রশ্ন জাগতো না।