৪:৫৩ এএম, ২২ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




একজন সম্ভাবনাময় উদীয়মান ক্রিকেটার নাহিম হাসান

২৪ জুলাই ২০১৯, ১২:৫৩ পিএম | নকিব


সৈকত আচার্য্য, বাঁশখালী প্রতিনিধি : ক্রিকেট বিশ্বে বাংলাদেশ একটি অবিস্মরনীয় নাম।  সম্প্রতি শেষ হওয়া বিশ্বকাপেও বাংলার দামাল ছেলেরা নিজেদের কৃতিত্ব সবার সামনে তুলে ধরেছে আপন মহিমায়। 

তারা একেকজন উঠে আসা গ্রামীন জনপদের সম্ভাবনাময় ক্রিকেট যোদ্ধা।  তেমনই এক উদীয়মান ক্রিকেটার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে নাহিম হাসান। 

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড উপজেলার বারকুন্ড এলাকায় জন্মগ্রহণ করে নাহিম হাসান।  অত্যন্ত প্রতিভাবান একজন ক্রিকেটার।  অলরাউন্ডার হিসেবে নাহিম হাসান প্রথমে শুলশান ইয়থ ক্রিকেট একাডেমীর মাধ্যমে সবার নজরে আসে। 

গুলশান ইয়থ ক্রিকেট একাডেমি থেকে নাহিমের খেলার যাত্রা শুরু হয়।  বর্তমানে সে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বি.পি.এল)এ চট্টগ্রাম ভাইকিংসের একজন গর্বিত খেলোয়াড়।  এছাড়া ঢাকা ডিভিশন অনুর্দ্ধ-১৮ দলের হয়ে খেলছেন।  চট্টগ্রামে তার জন্মস্থান হলেও বেড়ে ওঠা রাজধানীর ঢাকা শহরে।  ছোটবেলা থেকেই লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলায় ছিল তার অনেক আগ্রহ।  আর সে আগ্রহ থেকেই ক্রিকেটের প্রতি তার ভালোবাসা সৃষ্টি হয়।  ছেলের ইচ্ছা পূরণ করতে বাবা মা সবসময় ছিলেন তার পাশে। 

সাধ্য অনুসারে যোগান দিয়ে গেছেন তার চাহিদার।  বর্তমানে নাহিম হাসান বাংলাদেশ ক্রিকেট একাডেমিতে কোচিং করছে তার স্বপ্ন পূরণের জন্য।  হয়তো নাহিমের বুকভরা স্বপ্নের বাস্তবায়ন ঘটবে, কোন একদিন হয়তো জাতীয় দলে ডাক আসবে তার।  সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে নাহিম হাসান এই প্রতিবেদককে বলেন, ছোটবেলা থেকেই জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন দেখি। 

নিজেকে জাতীয় দলের জন্য যোগ্য ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তুলতে প্রেক্টিস করে যাচ্ছি।  ইতিমধ্যে বিপিএল ক্রিকেটে চিটাগাং ভাইকিংসের হয়ে লড়ার সুযোগ হয়েছে।  আশা রাখি ক্রিকেট বোর্ডের সুবিবেচনায় অচিরেই জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পাব। 

আসলে ভালো অবস্থানে যেতে হলে মানসিকভাবে খুবই শক্তিশালী হতে হবে, সহজে হার মানা যাবে না। 

আমি আমার সর্বোচ্চ টুকু দিয়ে খেলে যাব এবং জাতীয় ক্রিকেট দলে চট্টগ্রামের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবো এটাই আমার একমাত্র প্রত্যাশা।