৯:২৩ এএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯, রোববার | | ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




লালমনিরহাটে পোশাক শ্রমিককে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় গ্রেফতার দুই

০১ আগস্ট ২০১৯, ১১:০৩ এএম | নকিব


আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের আদিতমারীতে 

মাদক বিক্রি না করায় আকতার হোসেন(১৯) নামে এক পোশাক শ্রমিককে ছুরিকাঘাত করার ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (৩১ জুলাই) বিকেলে উপজেলার সারপুকুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের সর্দারটারী গ্রামের মন্টু মিয়ার ছেলে মাছুম মিয়া(৩৩) ও তেলিটারী গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে জিল্লুর রহমান শামীম(৩৮)। 

আহত পোশাক শ্রমিক আকতার হোসেন আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের মাষ্টারপাড়া গ্রামের সহিদার রহমানের ছেলে। 

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, আকতার হোসেন ও তার বড় ভাই ইসমাইল হোসেন ঢাকায় পোশাক শ্রমিকের কাজ করে পরিবার পরিচালনা করে আসছিল।  কিছু দিন আগে জন্ডিসে আক্রান্ত হলে তারা চিকিৎসার জন্য গ্রামের বাড়ি আসেন।  এরই মধ্যে তাদের গ্রামের প্রভাবশালী জলিল মুহুরীর ছেলে সুমন মিয়া(২৮) তার কাছ থেকে নিয়ে ইসমাইল ও আকতারকে ইয়াবা খুচরা বিক্রি করতে বলেন।  এতে তারা দুই ভাই রাজি না হয়ে উল্টো পুলিশকে তথ্য দেয়ার কথা জানালে উভয়ের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। 

এরই জের ধরে সোমবার(২৯ জুলাই) দিনগত রাতে সুমন মিয়া দলবল নিয়ে ইসমাইলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, লুটপাট করে।  এ সময় বাড়ি ছেড়ে সবাই অন্যত্র আশ্রয় নেয়।  পরদিন মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) সকাল ১১ টার দিকে স্থানীয় কালিস্থান এলাকায় একটি দোকানে আকতারকে দেখতে পেয়ে ছুরি দিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করে ইয়াবা ব্যবসায়ী ও সেবী সুমন মিয়া ও তার লোকজন। 

স্থানীয়রা আহত আকতারকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করে।  এ ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত আকতারের বড় ভাই ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে ওই দিন রাতেই আদিতমারী থানায় সুমন মিয়াসহ নয়জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। 

বুধবার বিকেলে অভিযান চালিয়ে মামলার এজাহার নামীয় দুই আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় এজাহার নামীয় দুই আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  বাকীদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 


keya