২:২৫ পিএম, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | | ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




সদরঘাটে র‌্যাব এর অভিযানে বিয়ার, বিদেশী মদ এবং ০১ টি সিএনজিসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

৩১ আগস্ট ২০১৯, ০৬:১০ পিএম | নকিব


নকিব ছিদ্দিকী, চট্টগ্রাম : র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদ্ঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। 

র‌্যাবের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ধর্ষক, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, ডাকাত, খুনি, বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, মাদক উদ্ধার, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। 

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী একটি সিএনজি যোগে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য নিয়ে চট্টগ্রাম মহানগরীর সদরঘাট থানাধীন ফিসারী ঘাট এলাকা হতে চট্টগ্রাম শহরের দিকে আসছে। 

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আজ দুপুরে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম নগরীর সদরঘাট থানার ৪০১ স্ট্যান্ড রোড, আনোয়ারা গার্মেন্টস এর দক্ষিন পার্শ্বে আদম ঘাট রাস্তার উপর একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশী শুরু করে। 

এ সময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা একটি সিএনজির গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা সিএনজিটিকে থামানোর সংকেত দিলে ড্রাইভার সিএনজিটিকে না থামিয়ে র‌্যাবের চেকপোস্ট অতিক্রম করে পালিয়ে যাওয়ার সময় র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে সিএনজিটি আটক করে। 

আটক কৃতরা  হল  মোঃ বশির (৩৫), পিতা- মৃত আবুল হাকিম, গ্রাম- বৈরাগ, ১নং ওয়ার্ড, পোঃ- মাধবপুর, থানা- আনোয়ারা, জেলা, চট্টগ্রাম, বর্তমান ঠিকানা- পূর্ব মাদারবাড়ী, বার্মা মসজিদ, সাব্বিরের বাড়ীর ভাড়াটিয়া, থানা- সদরঘাট। 

পরবর্তীতে উপস্থিতি সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে তার দেখানো ও সনাক্ত মতে সিএনজিটি তল্লাশী করে ৭৭ ক্যান বিয়ার, ২৭ বোতল বিদেশী মদ উদ্ধারসহ উক্ত সিএনজিটি জব্দ করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত আসামীকে আরো জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন যাবত সিএনজি অটোরিক্সা ভাড়ায় চালানোর আড়ালে বিভিন্ন মাদক সিন্ডিকেটের সাথে যোগসাজশে মাদকদ্রব্য ক্রয় বিক্রয় করে আসছে।  উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ০১ লক্ষ ৫৮ হাজার টাকা। 

গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মালামাল সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চট্টগ্রাম মহানগরীর সদরঘাট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।