৮:২৩ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার | | ২২ সফর ১৪৪১




চান্দগাঁও থেকে অপহৃত আট মাস বয়সের শিশু ফটিকছড়ি থেকে উদ্ধার

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:২৫ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম:  চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁও থেকে অপহৃত আট মাস বয়সের এক শিশুকে ফটিকছড়ি থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

একই ঘটনায় বুধবার রাতভর অভিযান চালিয়ে রেহেনা পারভীন (৪০) ও দিদারুল আলম (৫৫) নামের দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার বিকেলে এসব তথ্য জানান চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক। 

গত ৯ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে বেরিয়ে যান ফারুক।  এরপর ১১টা ৪০ মিনিটের দিকে শিশু সাইমন কান্নাকাটি করলে তার মা শারমিন আক্তারকে মানিক বলেন, তোমার ছেলেকে দাও, আমি বাইরে থেকে ঘুরিয়ে আনি। 

এরপর সাইমনকে কোলে দিলে সামনের দোকান থেকে কিছু কিনে দেয়ার কথা বলে বের হয়ে যায় মানিক।  এরপর তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।  ২-৩ ঘন্টা পরও বাসায় ফিরে না আসায় ফোন করে স্বামী ফারুককে বিষয়টি জানায় শারমিন।  ফারুক বাসায় এসে আশপাশে খুঁজে না পেয়ে চান্দগাঁও থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ অভিযানে নামে। 

পুলিশ জানায়, নগরের চান্দগাঁও থানাধীন বেপারী পাড়া ফেদে খান রোডে মোরশেদ কলোনিতে স্ত্রী ও ৮ মাসের সন্তান সাইমনকে নিয়ে ভাড়া থাকেন সিএনজি অটোরিকশা চালক ওমর ফারুক। 

পাশের একটি বাসায় আমানুল হক মানিক ভাড়া থাকেন, তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি।  প্রতিবেশী হওয়ায় তাদের মধ্যে পরিচয় ছিল। 

বুধবার দিবাগত রাতভর টানা অভিযান চালিয়ে ফটিকছড়ি থানা এলাকা থেকে ৮ মাসের সাইমনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় চান্দগাঁও থানা পুলিশ।  পাশাপাশি জড়িত দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

বৃহস্পতিবার নিজের কার্যালয়ে বাবা-মায়ের হাতে তাদের বুকের ধনকে ফিরিয়ে দেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক।  পাশাপাশি সাইমনের জন্য নতুন পোশাক এবং খাদ্য সামগ্রী উপহার হিসেবে দিয়েছেন তিনি। 

এদিকে সাইমনকে উদ্ধারে নেতৃত্ব দেয়া চান্দগাঁও থানার এসআই কাউসার হামিদসহ সংশ্লিষ্ট পুলিশ সদস্যদের অর্থ পুরস্কারও দেয়া হয়েছে সিএমপির উত্তর বিভাগের পক্ষ থেকে।  এ বিষয়ে পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় বসাক বলেন, এই পুরস্কার পুলিশ সদস্যদের আরও ভালো কাজ করতে উৎসাহ ও উদ্দীপনা জোগাবে। 

এ সময় মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (উত্তর) মিজানুর রহমান, সিনিয়র সহকারী কমিশনার (পাঁচলাইশ জোন) দেবদূত মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।