৮:৪৩ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার | | ২২ সফর ১৪৪১




লালমনিরহাটে চাতাল ব্যবসায়ির বিরুদ্ধে পাখি নিধনের অভিযোগ

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৫ পিএম | নকিব


আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ  লালমনিরহাট শহরের কুলাঘাট রোডের সিটি রাইস মিলস লিমিটেড নামের একটি চাতাল মালিকের বিরুদ্ধে চাতালে বিষ দিয়ে পাখি নিধনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

পাখির বিরুদ্ধে অভিযোগ ধান ঢেকে রাখার প্লাষ্টিক ছিড়ে আহার করা।      

শনিবার(১৪ সেপ্টেম্ব) দুপুর ১টা পর্যন্ত ওই চাতালে ২৯টি বাবুই, ২৪ টি ঘুঘু, ২টি সারস, কোয়েল ১টি ও ১টি কবুতর পাখি মারা হয়েছে। 

লালমনিরহাট শহরের গোলাম রাব্বানী নামের এক যুবক মৃত পাখি গুলো দেখতে পেয়ে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট করেন।  এতে মুহুর্তে ছবি গুলো ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।  

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট রোডের সিটি রাইস মিল লিমিটেডের সামনে পাখি গুলো জড়ো করে রেখে পাখি হত্যার বিচার চাই লেখা প্লেকার্ড রয়েছে।  সেখানে ২৯টি বাবুই, ২৪ টি ঘুঘু, ২টি সারস, কোয়েল ১টি ও ১টি কবুতর পাখি মৃত দেখা যায়। 

ওই চাতালের কর্মচারী কাম ফড়িয়া ধান ব্যবসায়ি লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর তেলিপাড়া এলাকার বাসিন্দা আব্দুস সালাম বলেন, প্লাষ্টিক ফুটো করে ধান খাওয়ার কারণেই বিষাক্ত কিছু দেয়।  এ কারণে পাখি গুলো পড়ে মারা যাচ্ছে।  বিষয়টি ঠিক হয়নি।  চাতাল শ্রমিক রবিউল ইসলাম ও আশরাফুল ইসলামও একই কথা বলেন।  

কোহিনুর বেগম নামে একজন নারী তার কবুতর হত্যার বিচার দাবি করেন। 

চাতাল মালিক মানিক হোসেনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সুইচ অফ পাওয়া যায়। 

এই বিষয়ে এডিসি রেভিনিউ আহসান হাবীব বলেন, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।  বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে।     

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, ঘটনাস্থলে এডিসি (রেভিনিউ)আহসান হাবীবকে পাঠানো হয়েছে।  তিনি ফিরে আসলেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।