১:৩৭ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার | | ২১ সফর ১৪৪১




পরিবার জানে থাকে কাতারে লাশ পাওয়া গেলো শ্রীপুরে !

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:৫৪ পিএম | নকিব


আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গত দুই মাস আগে স্ত্রী-সন্তানসহ সকাল স্বজনদের কাছ থেকে বিদায় নিয়ে কাতারের উদ্দেশ্য এয়ারপোর্টে যান তিনি। 

তবে সেখানে না গিয়ে বাংলাদেশে থেকেই প্রবাসীদের মতো নিয়মিত ইমুতে কথা হতো পরিবারের সাথে। 

আর অবশেষে সেই প্রবাসী মোবারক হোসেনের ঝুলন্ত লাশ পাওয়া গেলো গাজীপুরের শ্রীপুরে। 

১৮ সেপ্টেম্বর বুধবার রাতে শ্রীপুর পৌর এলাকার কেওয়া পূর্ব খন্ড গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।  

নিহত মোবারক হোসেন (৩৫) ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার লামুক্তা গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে।  গত ২মাস ধরে শ্রীপুর পৌর এলাকার কেওয়া পূর্ব খন্ড গ্রামের রফিজ উদ্দিনের বাড়ীতে ভাড়া থাকতেন তিনি।  

স্বজনরা জানায়, এরআগেও ৫ বছর কাতারে ছিলো মোবারক।  দেশে ছুটিতে এসে তার সমদ ভাই একই এলাকার  ফরহাদ (৩০)সহ কয়েকজন লোককে সাথে করে কাতারে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিলো।  এ ব্যাপারে তাদের কাছ থেকে কিছু টাকা নিয়ে অজ্ঞাত দালালকে দেয় মোবারক।  পরে ২ মাস আগে তিনি কাতারের কথা বলে বাড়ী থেকে বের হয়।  এরপর থেকে ইমুতে নিয়মিত ভাবে কথা হতো তার পরিবারের সাথে।  তখন মোবারক বর্তমানে কাতারে রয়েছে বলে তার পরিবারকে জানান।  

স্থানীয়রা জানান, গত রাত সাড়ে আটটার দিকে মোবারক হোসেনের লাশ তার থাকার ঘরের ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখে পুলিশকে জানিয়ে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।  হাসপাতালে আনার পর সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।  পরে সেখান থেকে পুলিশ লাশ নিয়ে যায়। 

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এস আই)  নয়ন ভুঁইয়া জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।  তিনি আরো জানান, মোবারক হোসেনের লাশের সাথে কাতার যাওয়ার মেয়াদোত্তীর্ণ কিছু কাগজপত্র পাওয়া গেছে।  তদন্ত করে এগুলো সম্পর্কে পরে জানা যাবে।  

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে মোবারক হতাশায় ভোগে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।  তবে লাশের ময়নাতদন্তের পর এ বিষয়ে  বিস্তারিত বলা যাবে বলেও জানান তিনি।