৮:০১ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার | | ২২ সফর ১৪৪১




লক্ষীপুরে ভূমিদস্যুদের কবল থেকে বাঁচতে চায় এক নিরীহ পরিবার

২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:৩১ পিএম | নকিব


সোহেল মাহমুদ মিলন, লক্ষীপুর প্রতিনিধি : লক্ষীপুর সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব আলাদাতপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. সফি উল্লাহ (৬৫)।  তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক একজন কর্মচারী। 

সম্প্রতি তার বসতঘর দখলে নিতে উঠে পড়ে লেগেছে স্থানীয় একটি ভূমিদস্যু চক্র।  ভূমিদস্যুরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার পরিবারের উপর একাধিকবার হামলা চালিয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। 

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্থানীয় চন্দ্রগঞ্জ প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী সফি উল্লাহ সহ তার পরিবারের সদস্যরা।  এ বিষয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় অভিযোগ রয়েছে।  

অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছেন, মো. সিরাজের ছেলে ওবায়দুর রহমান আবু, সাইফুল, আজাদ, সায়মন, সিদ্দিক উল্লার ছেলে মনির হোসেন সুমন, শফি উল্লার ছেলে মোসলেহ উদ্দিন, বাবুল মিয়ার ছেলে তানভীর সিকদার এবং আনোয়ার উল্লার ছেলে নুরুল হুদা।  তারা স্থানীয় হাজিরপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব আলাদাতপুর প্রকাশ্যে নাছিরপুর গ্রামের বাসিন্দা। 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ভুক্তভোগী সফি উল্লার ছেলে মো. তারেক বলেন, ভূমিদসু্যুরা ইতোমধ্যে আমাদের তিন শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছে।  দীর্ঘদিন ধরে তারা আমাদের গৃহবন্দী করে রাখার পাঁয়তারা করছে।  গত একমাসে একাধিকবার ভূমিদস্যুরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাদের বসতভিটা দখলের চেষ্টা চালায়।  গত ১৮ আগস্ট আমার মা-বাবা ও প্রতিবন্ধী বোনকে পিটিয়ে আহত করে ভূমিদস্যুরা।  তখন আমি ঢাকায় ছিলাম।  পরে ৯৯৯-এ কল করলে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ আমার পরিবারকে সহযোগিতা করে।  কিন্তু এ ঘটনার পর ভূমিদস্যুরা আরও মরিয়া হয়ে ওঠে।  তারা আমাদের হত্যার হুমকি দিচ্ছে।  আমার কলেজ পড়–য়া ভাগ্নিকে বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।  এসব কারণে আমার শঙ্কিত। 

ভুক্তভোগী শারীরিক প্রতিবন্ধী জোছনা আক্তার বলেন, ‘আমি ও আমাদের পরিবারের সবাই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছি।  আমরা নিরাপত্তা চাই।  ভূমিদস্যুদের কবল থেকে আমরা বাঁচতে চাই।  দয়া করে আমাদের বাঁচান। ’