৪:২৪ এএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার | | ২৩ সফর ১৪৪১




কমলার রসে মেজাজ ভালো থাকে, কমে স্ট্রোকের ঝুঁকি

০৬ অক্টোবর ২০১৯, ১০:৪০ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: কমলার রস যে শরীরের জন্য খুব উপকারী এবং স্বাস্থ্যসম্মত তা কম বেশি সকলেরই জানা। 

তবে প্রতিদিন নিয়ম করে এক গ্লাস কমলার রস যে স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায় এটা হয়তো অনেকেই জানেন না। 

সম্প্রতি ব্রিটিশ জার্নাল অফ নিউট্রিশনে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হচ্ছে, কমলা রস প্রতিদিন খেলে স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকি প্রায় এক চতুর্থাংশ কমে যায়। 

কমলালেবুর রস এবং অন্যান্য সাইট্রাস ফলের রস স্বাস্থ্যকর, তাজা রাখে এবং ভিটামিন সি এবং অন্যান্য অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহের দুর্দান্ত উত্স।  তাজা কমলার রস মেজাজ ভালো রাখে এবং শক্তি বাড়ায়।  ব্রেকফাস্টের সঙ্গে বা জিম করার পরে কমলার রসের কদরই আলাদা।  কমলালেবুর রস ভিটামিন, পুষ্টি এবং অপরিহার্য খনিজগুলির একটি চমৎকার ভাণ্ডার।  স্বাস্থ্য এবং ফিটনেস উত্সাহীদের মধ্যেও তাই এটি একটি প্রিয় পানীয়। 

গবেষণার বলা হচ্ছে, প্রতিদিন যারা কমলার রস খান তাঁদের মস্তিষ্কে রক্ত জমাট হওয়ার ঝুঁকি ২৪% হ্রাস পেয়েছিল।  তাঁদের হৃদরোগের হারও ১২ থেকে ১৩% হ্রাস পেয়েছিল।  ২০ থেকে ৭০ বছর বয়সী প্রায় ৩৫,০০০ পুরুষ এবং মহিলাদের উপর এই পরীক্ষা করা হয়। 

কমলা লেবুর রসের অন্যান্য উপকারিতা:

১. অনাক্রম্যতা বাড়ায়: কমলালেবুর রস ভিটামিন সি সমৃদ্ধ, যা আপনার অনাক্রম্যতা বৃদ্ধি করে এবং ঠান্ডা লাগা, ফ্লু এবং অন্যান্য প্রদাহজনক রোগ থেকে রক্ষা করে। 

২. ত্বকের স্বাস্থ্য: কমলালেবুর রসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে ভরপুর।  রয়েছে পর্যাপ্ত ভিটামিন সি যা ফ্রি র‍্যাডিকেল প্রভাবের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।  ফ্রি র‍্যাডিকাল আপনার ত্বক শুষ্ক করে, বলিরেখা বাড়ায়।  কমলার রসে উপস্থিত ভিটামিন সি ত্বক ভালো এবং উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। 

৩. ওজন হ্রাস: কমলার রসে ক্যালোরি অবিশ্বাস্যভাবে কম এবং চর্বিও নেই।  আপনি অতিরিক্ত ওজন কমাতে চাইলে এটি একটি চমৎকার বিকল্প।  পুষ্টিবিদরা প্রায়ই একটি গোটা কমলার রস খাওয়ার পরামর্শ দেন। 

৪. শক্তিশালী হাড়: কমলার মধ্যে থাকা ক্যালসিয়াম আপনার হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য অবিশ্বাস্যরকমের উপকারি।  এছাড়াও কমলা লেবুতে নারিঞ্জেনিন এবং হেস্পিরিডিনের মতো ফ্ল্যাভনয়েডস থাকে যা বিরোধী প্রদাহজনক এবং আর্থ্রাইটিস ব্যথা উপশমে সাহায্য করে। 

৫. কিডনির পাথর: ডি কে পাবলিশিংয়ের 'হিলিং ফুডস' বই অনুসারে, কমলাতে সাইট্রেটের পরিমাণ বেশি, যার অর্থ কমলালেবুর রস ভেঙে ক্যালসিয়াম অক্সালেট পাথর ভাঙতে সাহায্য করে এবং কিডনি পাথরের কারণে ব্যথা থেকেও মুক্তি পেতে সাহায্য করে।