৪:৩৪ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার | | ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




বাবার পাশে ঘুমন্ত শিশুর ক্ষতবিক্ষত লাশ মিলল কদমগাছে

১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:১৩ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে প্রত্যন্ত পল্লী থেকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় এক শিশুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

নিহত শিশু তুহিন হাসান (৫) উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের কেজাউড়া গ্রামের আব্দুল বাছিরের ছেলে। 

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়, রোববার রাতে শিশুটি বাবার সঙ্গে একই বিছানায় ঘুমিয়ে ছিল।  শিশুটির বাবা বাছির প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে ঘর থেকে বের হওয়ার সময় দেখতে পান বসত ঘরের সামনের দরজা খোলা এ সময় তিনি দেখতে পান তুহিন বিছানায় নেই। 

পরে ঘটনাটি চিৎকার দিয়ে স্বজন ও প্রতিবেশী সবাইকে জানান।  বসত ঘরের কোথাও শিশুটিকে না পেয়ে বাড়ির বাইরে খোঁজাখুঁজি করেন।  একপর্যায়ে বাড়ির সামনের সড়কে রক্ত দেখতে পেয়ে সামনে এগিয়ে গিয়ে দেখেন তার সন্তান গ্রামের মসজিদের পাশে একটি কদম গাছে ঝুলে রয়েছে।  এ সময় তার শরীরে ধারালো দুটি ছুরি ঢোকানো ছিল।  শিশুটির দুটি কান ও গলাকাটা এবং গোপন অঙ্গও কাটা ছিল। 

সোমবার (১৪ অক্টোবর) সকালে দিরাই থানা পুলিশকে খবর দিলে তারা মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। 

তুহিনের স্বজনদের অভিযোগ, রাতে তাকে ঘর থেকে বের করে নিয়ে গিয়ে দুর্বৃত্তরা হত্যা করেছে।  রাজানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৌম্য চৌধুরী বলেন, তিনি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছেন। 

দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু তাহের মোল্লা বলেন, ঘটনাটি চাঞ্চল্যকর পুলিশ খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করেছে।  ডিবি পুলিশও ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। 

আবদুল বাছিরের ভাই আবদুল মছব্বির বলেন, তুহিন এবার স্কুলে ভর্তি হয়েছিল।  জমিজমা নিয়ে গ্রামের কিছু মানুষের সঙ্গে তার বাবার বিরোধ আছে।  কিন্তু কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, আমরা বুঝতে পারছি না।  যে-ই করে থাকুক, আমরা তাদের শাস্তি চাই।