৩:২৮ এএম, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার | | ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




সহকারী পরিচালকের বেত্রাঘাতে, ছাত্রী হাসপাতালে

১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:৫৩ পিএম | নকিব


আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের আদিতমারীতে ৭ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানের সহকারী পরিচালক বজলুর রহমানের বিরুদ্ধে।  

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কমলাবাড়ী ইউনিয়নের মিরের চর সাকসেস কিন্ডার গার্টেন স্কুলে ঘটনাটি ঘটেছে।  প্রতিষ্ঠানটি নর্থ বেঙ্গল কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশন আওতাভুজক্ত রাতে আহত স্কুল ছাত্রী তামান্না আকতারকে (১৩) উদ্ধার করে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  বর্তমানে তামান্না হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

বুধবার হাসপাতালে গিয়ে আহত তামান্নার সাথে কথা বলে জানাগেছে, দীর্ঘ ২ বছর ধরে সে সাকসেস কিন্ডার গার্টেন স্কুলে লেখাপড়া করে আসছে।  ভর্তির শুরু থেকে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে ক্লাস নেয়ার কথা থাকলেও তা মানছেন না প্রতিষ্ঠানটি পরিচালক ফজলুল করিম।  এ ঘটনায় ৭ম শ্রেনীর ছাত্রীরা মঙ্গলবার রাতে ক্লাস চলাকালীন সময় প্রতিবাদ জানায়।  এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিষ্ঠানটি পরিচালকের ছোট ভাই ও সহকারী পরিচালক বজলুর রহমান তামান্না আকতারকে বাঁশের বেত দিয়ে মারধর করেন।   সহকারী পরিচালকের বেত্রাঘাতে স্কুল ছাত্রীটি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পরেন।  পরে তারই চাচাত ভাই ও সহপাঠী কাওসারের মাধ্যমে তাকে বাড়ীতে পাঠিয়ে দেয়া হয়।  পরে তামান্নার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রাতেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

তামান্নার বড় ভাই বাবু মিয়া জানান, একজন শিক্ষক এভাবে ছাত্রীকে মারতে পারে না।  তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবী করেন।  সাকসেস কিন্ডার গার্টেন স্কুলের পরিচালক ফজলুল করিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এভাবে মারধর করা ঠিক হয়নি।  আমরা মেয়েটির পরিবারের সাথে বসে মীমাংসার চেষ্টা করছি।  

আদিতমারী হাসপাতালের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ওমর ফারুক জানান, স্কুল ছাত্রীটির দুই হাত ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।  সুস্থ্য হতে কিছুটা সময় লাগবে বলে তিনি দাবী করেন।  

আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন,ঘটনাটি শুনেছি।  অভিযোগ পেলে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখবে পুলিশ। 


keya