৮:৩৪ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার | | ৮ রবিউস সানি ১৪৪০




ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ঢাবি ছাত্রীর আত্মহত্যা

৩০ নভেম্বর -০০০১, ১২:০০ এএম | মোহাম্মদ হেলাল


এসএনএন২৪.কম : রাজধানীর পূর্ব নাখালপাড়ার একটি বাসায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। 

বুধবার সকালে পুলিশ তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।  তবে পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ হস্তান্তর করা হয়। 

মহসিনা মেধা নামের ওই ছাত্রী ঢাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।  মঙ্গলবার গভীর রাতে আত্মহত্যার আগে তিনি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে 'আত্মহত্যা করতে যাচ্ছেন' বলে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন।  তবে বুধবার তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় দেখা গেছে। 

স্বজনদের উদৃব্দত করে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানিয়েছেন, মেধা পড়ালেখা বন্ধ করে মঙ্গলবার গভীর রাত পর্যন্ত ফেসবুক চালাচ্ছিলেন।  রাত আড়াইটার দিকে তার মা তাকে ফেসবুকে দেখে গালমন্দ করেন।  এরপর তিনি নিজের কক্ষে ঘুমিয়ে যান।  পরিবারের সদস্যরা ভোরে উঠে দেখেন, মেধার নিথর দেহ শোবার ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে। 

ওসি বলেন, আলামত দেখে মনে হচ্ছে মায়ের বকুনিতে অভিমান করে মেধা আত্মহত্যা করেছেন।  তা ছাড়া পরিবারের কোনো অভিযোগও নেই।  এ জন্য ময়নাতদন্ত ছাড়া মেধার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী বলেন, মেধা পূর্ব নাখালপাড়ায় তার পরিবারের সঙ্গে থাকতেন।  তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে।  মৃতদেহ কুমিল্লায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে তারা জানতে পেরেছেন।    

মেধার একজন সহপাঠী হাসান সমকালকে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার গভীর রাতে মেধা ফেসবুকে তার আত্মহত্যার একটা স্ট্যাটাস দেন।  এর পরই তিনি তার অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করে দেওয়ায় আর যোগাযোগ করা যায়নি।  বুধবার সকালে তারা জানতে পারেন, তিনি বাসায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন।  তারা কয়েক বন্ধু তাকে দেখতে বাসায় গেলেও দেখতে পারেননি। 

মেধার একজন ঘনিষ্ঠ বান্ধবী নাম প্রকাশ না করে বলেন, 'মোবাইল ফোন ব্যবহারকে কেন্দ্র করে তার মায়ের সঙ্গে প্রায়ই বাকবিতণ্ডা হতো।  এতে অভিমান করে সে আত্মহত্যা করতে পারে। '   

মেধার সহপাঠী সাবরিনা বলেন, 'এতটুকু বকাঝকায় মেধা আত্মহত্যা করবে ভাবতে কষ্ট হচ্ছে।  মনে হচ্ছে সে অন্য কোনো বিষয় নিয়ে আগে থেকেই কষ্টে ছিল। '

ঢাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এহসানুল হক সমকালকে জানান, 'বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী তাকে জানিয়েছে মেধা নামে এক শিক্ষার্থী পারিবারিক কারণে আত্মহত্যা করেছে।  তবে তারা অফিসিয়ালি এখনও কিছু জানেন না। ' 

এন এ কে



keya