৪:৩৭ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার | | ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




ফুলবাড়ীতে এক অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষিতা ধর্ষকসহ ৪জন আটক

৩০ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:৫০ পিএম | নকিব


মোঃ আশরাফুল আলম ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে এক অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রƒী ধর্ষনের শিকার হয়েছে। 

এই ঘটনায় ধর্ষকসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

গত মঙ্গলবার উপজেলার বারাই হাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। , এই ঘটনায় ওই দিন (মঙ্গলবার) রাতেই ধর্ষকসহ ৭জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর  মা। 

বুধবার দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ধর্ষিতার মডেকেল পরিরক্ষা করা হয়েছে। 

পুলিশের হাতে আটক কৃতরা হলেন, উপজেলা ঝাঝিরা গ্রামের নুরুল হকের ছেলে আব্দুর রহমান (৩৭),একই উপজেলার রাঙ্গামাটি পশ্চিম পাড়া গ্রামের জার্জিস আলমের ছেলে আরিফুল রহমান মিষ্টার (২৪), একই গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মশিউর রহমান (২৫) ও  জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে  সাহিনুন আলম (৩৫)। 

 ধর্ষন মামলা অপর আসামীরা হলেন সিন্দুর হাটা গ্রামের গোলাম রব্বানীর ছেলে রাসের (২৫), রাঙ্গামাটির গ্রামের এসকেন্দারের ছেলে মিনাজুল (২৬) ও মালচি গ্রামের সাজুর ছেলে সজিব (২৪)। 

ধর্ষিতার মা বলেন, পুর্ব পরিচয়ের সুত্র ধরে আব্দুর রহমান, তার মেয়েকে ফুসলিয়ে ধর্ষনের উদ্ধেশে মটর সাইকেল যোগে দিনাজপুর নিয়ে যাওয়ার চেষ্ঠা করে, এসময় তার মেয়ে আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্য বুজতে পেরে মটর সাইকেল থেকে নেমে যাওয়ার চেষ্ঠা করলে, বারাই হাটের সন্নিকটে থাকা আরিফুর রহমান মিষ্টার মশিউর রহমান (২৫) সাহিনুন আলমসহ কয়েকজন যুবক তাদের মটর সাইকেল থামিয়ে, জিজ্ঞাসাবাদ করে, তার মেয়েকে সাহায্য করার কথা বলে, পাশের একটি লিচু বাগানে নিয়ে আরিফুর রহমান মিষ্টার ধর্ষন করে।  এসময় তার মেয়ের আত্মচিৎকার করলে পথচারী ও টহল পুলিশ ধষিতাকে উদ্ধার করে, ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষকসহ ৪ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। 

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফকরুল ইসলাম বলেন বারাই হাট এলাকায় পুলিশ টহল দেয়ার সময়, একটি মেয়ের চিৎকার শুনে ওই মেয়েকে উদ্ধার করে ৪ যুবককে আটক করা হয।  এই ঘটনায় মেয়ের মা বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতে ধৃত ৪ যুবকসহ ৭জনকে আসামী করে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে।