১১:৫২ পিএম, ১১ জুলাই ২০২০, শনিবার | | ২০ জ্বিলকদ ১৪৪১




মেয়াদ উর্ত্তীণ ইনজেকশন প্রয়োগঃ মুমূর্ষু অবস্থায় মহিলা রাউজান হাসপালে ভর্তি

০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:০৫ এএম | নকিব


প্রদীপ শীল, রাউজানঃ গ্রাম্য ডাক্তার মেয়াদ উর্ত্তীণ ইনজেকশন প্রয়োগ করায় ফলে এক মহিলাকে মুমূর্ষু অবস্থায় রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।  

 মঙ্গলবার সকালে এই মহিলাকে ভর্তি করান বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়। 

জানা যায়, গত ২ ডিসেম্বর রাউজান ইউনিয়নের পশ্চিম রাউজান হরিশখাঁন পাড়া এলাকার  আবদুল মন্নানের স্ত্রী ডেজী আক্তারের জরায়ুতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে গ্রাম্য ডাক্তার এম এম বাহারুল আলমের নিজের ফার্মেসী সেবা ক্লিনিক থেকে মেয়াদ উর্ত্তীণ এনাক্সজেল ইনজেকশন প্রয়োগ করে। 

ডাক্তারের নিজ দোকান থেকে ১০টি একই ইনজেকশন দিনে দু'বার প্রয়োগ করতে বলে।  এই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী পরেরদিন অন্য এক টেকনিশিয়ান দ্বারা এই ইনজেকশন দিতে গেলে তিনি জানান এটা মেয়াদ উর্ত্তীণ। 

তখন রোগীর অবস্থা গুরুতর হয়ে পড়লে তার পরামর্শে হাসপাতে ভর্তি করে এই মহিলাকে।  ডাক্তার বাহার প্রশাসনকে বৃদ্ধ আঙ্গুল দেখিয়ে জলিল নগর বাস ষ্টেশনস্থ থানা সড়কে চেম্বার নিয়ে রোগী দেখেন। 

রোগীর স্বামী আবদুল মন্নান ডাক্তার বাহারুল আলমের  ব্যবস্থা পত্র ও মেয়াদ উর্ত্তীণ এনাক্সজেল ইনজেকশন সাংবাদিকদের দেখিয়ে অভিযোগ করে বলেন এই ডাক্তারের কারণে আমার স্ত্রী শয্যাশায়ী। 

বর্তমানে মেডিকেলে ভর্তি আছে।  আমি দরিদ্র পরিবার নিয়ে মহা জটিলতায় পরেছি।  এ ব্যাপারে গ্রাম্য ডাক্তার বাহারুল আলম সাংবাদিকদের জানান তিনি ভূল করেছেন।  এটা তার মনের অগোচরে হয়েছে।  

তিনি বলেন আমি তার সাথে সমঝোতা করে ফেলবেন।  পরে জানা যায়, পাঁচ হাজার টাকার বিনিময়ে ডাক্তার ও রোগীর স্বামী মন্নানের সাথে আপোষ রফা করার চেষ্টায় চালাচ্ছে। 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ চুয়েটে রাষ্ট্রপতির আগমনের বিষয়ে ব্যস্ত থাকায় কোন বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। 


keya