৬:০১ এএম, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার | | ৫ রজব ১৪৪১




নানা আয়োজনে বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়য়ের ১ম বর্ষপূর্তী উদযাপন

১৫ জানুয়ারী ২০২০, ০১:২০ পিএম | নকিব


এম. সাইফুর রহমান,খাগড়াছড়ি, প্রতিনিধি :"দুর করে অন্ধকার-জ্বালাও আলো শিক্ষার" এই শ্লোগানে নানা আয়োজনে পালিত হলো খাগড়াছড়ির লক্ষিছড়ি ও ফটিকছড়ি সীমান্তের দুর্গম পাহাড়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লক্ষা¥ীছড়ি জোন কর্তৃক পরিচালিত বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রথম বছরফুর্তি। 

সকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন লক্ষিছড়ি সেনা জোন অধিনায়ক লে: কর্নেল মো: জাহাঙ্গীর আলম। 

পরে আলোচনা সভায় তিনি বলেন, শান্তি, স¤প্রীত, উন্নয়ন সেনাবাহিনীর মুলমন্ত্র হলেও শিক্ষা, চিকিৎসা সহ পাহাড়ে নানা কল্যাণমুখি কার্যক্রম করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। 

বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয় তারই একটি জলন্ত উদাহরণ মন্তব্য করে এ ধারা অব্যহত থাকবে বলেও জানান তিনি।  অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ফটিকছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আবু তৈয়ব, লক্ষিছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী, ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: সায়েদুল আরেফিন। 

কর্ণফুলী চা এর পরিচালক সাইদ বখত মজুমদার’সহ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি ও সামারিক-বেসামরিক বিভিন্ন পদস্থ কর্মকর্তাগন  উপস্থিত ছিলেন।  পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অতিথি শিল্পীরা মাতিয়ে তুলে পুরো স্কুল ক্যাম্পাস। 

উল্লেখ্য, ২০১৮সালের ২৯শে অক্টোবর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।  এ বিদ্যালয়ের অবকাঠামো নির্মাণসহ যাবতীয় কর্মকান্ডে সার্বিক সহযোগিতা করে আসছেন গুইমারা রিজিয়ন। 

সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত এ বিদ্যালয়টি স্থাপনের ফলে ২০ কি: মি: দুরে ফটিকছড়ি ও ১০কি: মি: দুরে ল²ীছড়িতে ছেলে-মেয়েদের এখন আর কষ্ট করে যেতে হয়না।  ফলে কমে যাচ্ছে ঝড়ে পরার হার।