৮:৫০ পিএম, ২৮ মার্চ ২০২০, শনিবার | | ৩ শা'বান ১৪৪১




শুদ্ধ সুরে জাতীয় সংগীতে ফের আব্দুল আউয়াল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ সেরা

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৪১ এএম | নকিব


আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ শুদ্ধ সুরে জাতীয় সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় উপজেলা পর্যায়ে আবারো সেরা হয়েছে গাজীপুর জেলার শ্রীপুরের আব্দুল আউয়াল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ।  এর আগেও একাধিক বার এ উপজেলায় ও জেলায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে কলেজটি। 

১৯ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকাল থেকে সারাদিনব্যাপী উপজেলার শিল্পকলা একাডেমিতে এ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। 

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রতিযোগীতায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফীন। 

জানা যায়, শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এ বছরের আয়োজনে উপজেলার  ৯৬টি দল অংশ নেয়।  প্রতিযোগিতার সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস। 

এ প্রতিযোগিতায় বিচারক মণ্ডলীর সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এস.এম ওবায়দুল বাশার,  উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মনজুরুল ইসলাম ও উপজেলা সহকারী মৎস কর্মকর্তা মোঃ বদিউজ্জামাল ।  শিক্ষক হিসেবে ছিলেন, উপজেলা শিল্প কলা একাডেমির মাস্টার ট্রেইনার ফরিদ মিয়া ও  গোলাপ হোসেন। 

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, কলেজ পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে আব্দুল আউয়াল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, দ্বিতীয় ধলাদিয়া ডিগ্রি কলেজ এবং তৃতীয় হয়েছে শ্রীপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ।  মাধ্যমিক পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে শ্রীপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, দ্বিতীয় কাওরাইদ কে.এন উচ্চ বিদ্যালয় এবং তৃতীয় হয়েছে আলহাজ্ব নওয়াব আলী উচ্চ বিদ্যালয়। 

তিনি আরো জানান, প্রথমে স্কুল পর্যায়ে দলগত ভাবে,দ্বিতীয়ত ইউনিয়ন পর্যায়ে ও পরে উপজেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।   মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে প্রতিটি বিভাগে বিজয়ী দলগুলো জেলা ও পরবর্তীতে বিভাগীয় পর্যায়ের চূড়ান্তপর্বে অংশগ্রহণ করবে। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফীন জানান, এ উপজেলার সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে শুদ্ধ সুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনার জন্য সারা দেশের ন্যায় এমন আয়োজন।   জাতীয় সংগীত চর্চাকে অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে দেশব্যাপী প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে দলগত জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগিতা প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার ।