৯:৩০ পিএম, ৩ জুন ২০২০, বুধবার | | ১১ শাওয়াল ১৪৪১




ময়মনসিংহে পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছে গার্মেন্টসকর্মীরা

০৬ এপ্রিল ২০২০, ১২:৪৭ পিএম | নকিব


মিজানুর রহমান. ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ কাজে যোগদান করতে গতকাল শনিবার ঢাকায় যাওয়ার পর পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছেন গার্মেন্টসকর্মীরা।  রবিবার(৫ এপ্রিল) সকালে গার্মেন্টেসে তালা এবং বন্ধের নোটিশ দেখে আবারও বাড়ি ফিরে আসেন তারা। 

বাড়ি ফিরে আসা কর্মীদের অভিযোগ, মার্চের বেতন-ভাতা ছাড়াই তাদেরকে বাড়ি ফিরতে হচ্ছে।  আসার সময় কেউ ভ্যানে, পিকআপে কিংবা পায়ে হেঁটে এসেছেন। 

ময়মনসিংহ পাটগুদাম ব্রিজমোড়ে এসব গার্মেন্টসকর্মীদের পায়ে হেটে কোলে কিংবা কাঁধে শিশুকে রেখে তাদেরকে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে।  আসার সময় নানা দুর্ভোগের কথা জানিয়েছেন তারা। 

জিটিএল গার্মেন্টেসের কর্মী রিয়াজুল জানান, শনিবার ময়মনসিংহ তারাকান্দা থেকে খুব কষ্টে ঢাকায় গিয়েছিলেন কাজে যোগদান করার জন্য।  সকালে গার্মেন্টেসে গিয়ে দেখেন প্রধান ফটকে তালা এবং বন্ধের নোটিশ টাঙানো রয়েছে।  কোনও কর্মকর্তাকে কিছু বলার মতো পাওয়া যায়নি।  তিনি আরও জানান, বেতন ছাড়াই সকালে ঢাকা থেকে আসার পথে ৫ বার পিকআপ বদলাতে হয়েছে।  পরে গাড়ি না পেয়ে ভালুকা থেকে তিনি পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ৪ ঘণ্টা পায়ে হেটে ময়মনসিংহে এসেছেন তারাকান্দায় যাওয়ার জন্য।  এখন ভ্যান পাওয়া গেলে যেতে পারবেন।  পথে গার্মেন্টসকর্মীদের চরম দুর্ভোগের কথা জানিয়েছেন রিয়াজুল। 

গার্মেন্টসকর্মী রিতা জানান, মালিকরা কর্মীদের সঙ্গে তামাশা করেছে।  বন্ধটা দুইদিন আগে জানালে তাদের কষ্ট করে গাজীপুর যেতে হতো না।  আাজ কাজে যোগ দিতে গিয়ে দেখা যায় বন্ধের নোটিশ।  বেতনতো দূরে থাক তাদের যাতায়াত খরচও গার্মেন্টস মালিকরা দেননি।  গাজীপুর বাড়ি আসার সময় পুলিশ তাদের পিকআপ গাড়ি তিনবার আটকে দেওয়ায় খুব কষ্টে ময়মনসিংহের ব্রিজ পর্যন্ত এসেছেন।  এরকম দুর্ভোগে সবাইকে পড়তে হচ্ছে বলে জানান তিনি। 


keya