৯:২৩ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রোববার | | ২ সফর ১৪৪২




ময়মনসিংহে প্রথম কন্যা সন্তান জন্মের ৩৯ দিন পর দ্বিতীয় পুত্র সন্তানের জন্ম

২৮ জুন ২০২০, ১০:১৩ এএম | নকিব


মিজানুর রহমান, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় এই ঘটনা বিরল।  হাসিখুশি মুখের  এই নারীর নাম রিতা আক্তার। 

রিতা আক্তার ও আমিনুল ইসলাম দম্পতির বাড়ি গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার বর্মী'র নয়া  নগর গ্রামে।  সারে তিন বছরের দাম্পত্য জীবনে নিঃসন্তান এই দম্পতি একটি সন্তান লাভের আশায় প্রফেসর ডাঃ শিলা সেন এর চিকিৎসা গ্রহণ করেন। 

চিকিৎসা গ্রহণের পর আল্লাহর কৃপায় রীতা গর্ভবতী হোন।  আল্ট্রাসনোগ্রাম করলে রীতার গর্ভে দুটি সন্তানের অস্তিত্ব ধরা পরে।  গর্ভধারণের পর তিনি নিয়মিত প্রফেসর ডাঃ শিলা সেন এর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করতে থাকেন। 

কিন্তু গত ১৩/৫/২০ হঠাৎ করে রীতার মারাত্মক পেটব্যথা শুরু হলে তাৎক্ষণিক তিনি সাথে যোগাযোগ করলে, রোগী রীতাকে নিজ চেম্বারে আসতে বলেন।  রীতা আসার পর কালবিলম্ব না করে তাকে তাৎক্ষণিক শিলাঙ্গন হাসপাতালে ভর্তি করে লেবার ওটি তে পাঠানো হলে প্রফেসর ডাঃ শিলা সেন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে রীতা একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। 

১৩/৫/২০২০ তারিখে ৩১ সপ্তাহে জন্ম নেওয়ার কন্যা সন্তানের ওজন হয় মাত্র ১১০০ কি.গ্রা. এত কম ওজনের নবজাতক কে বাঁচাতে শিলাঙ্গন হাসপাতাল কতৃপক্ষ সর্বোচ্চ চেষ্টা করে এবং সফল হোন।  অন্যদিকে রীতার গর্ভের ২য় বাচ্চাটি রীতার গর্ভেই থেকে যায়।  রীতাও শারীরিক ভাবে সুস্থ বোধ করতে থাকলে ৭২ ঘন্টা পর প্রফেসর ডাঃ শিলা সেন পরবর্তী চিকিৎসার জন্য রীতাকে কমিউনিটি বেজড মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। 

সেখানেও রীতা সার্বক্ষণিক প্রফেসর ডাঃ শিলা সেন তত্ত্বাবধানে ছিলেন।  অতঃপর গত ২৩/৬/২০২০ তারিখ রীতা গর্ভস্থ ২য় পূত্র সন্তানটি প্রসব করেন।  প্রথম সন্তান প্রসবের একমাস দশদিন পর ২য় সন্তান প্রসব চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় বিরল।  সাধারণত যমজ বাচ্চার প্রসব কয়েক মিনিট বা এক, দুই ঘন্টার ব্যবধানে হয়ে থাকে।  যাই হোক আল্লাহর অশেষ কৃপায় রীতা এখন এক কন্যা ও এক পূত্র সন্তানের গর্বিত মা। 

রীতা ও তার সন্তানরা সুস্থ আছে, সুস্থ থাকুক, আনন্দে থাকুক।  এমন একটি বিরল ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকায় শিলাঙ্গন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও খুশি।  ৩৯ দিন পর ২য় যমজের জন্ম সারা পৃথিবীতেই বিরল ঘটনা।