৪:৩২ এএম, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, শনিবার | | ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২




ভ্যাকসিন প্রয়োগে ৪২ হাজার কর্মীর সাত হাজার টিম প্রস্তুত’

১৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:৪২ পিএম |


এসএনএন২৪.কমঃ করোনার টিকা প্রয়োগে ৪২ হাজার কর্মীর ৭ হাজার টিম প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। 

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, প্রতি জেলায় ৭ লাখ ডোজের বেশি ভ্যাকসিন রাখার ব্যবস্থা করা হবে।  এছাড়া বিভিন্ন উৎস থেকে মোট ১১ কোটি ডোজ টিকা পাওয়ার বিষয়টিও নিশ্চিত করেন মন্ত্রী। 

ভারতের সেরাম ইন্সটিউট ও বাংলাদেশের বেক্সিমকোর চুক্তি অনুযায়ী চলতি মাসের শেষ সপ্তাহেই করোনা ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ।  টিকা প্রয়োগের পদ্ধতি কি হবে, কারা পাবেন অগ্রাধিকার - এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বসে বৈঠক। 

বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, টিকা প্রয়োগ ও বিতরণের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিবের নেতৃত্বে গঠিত জাতীয় কমিটি।  এজন্য কমিটিকে একটি খসড়া প্রস্তাবনা দেয়া হবে।  তবে, ভ্যাকসিন প্রয়োগে ৭ হাজার টিম প্রস্তুত করা হয়েছে।  প্রতি জেলায় সাত লাখ ডোজ টিকা থাকবে। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, 'প্রতিটি জেলায় স্টোরের সুবিধা রয়েছে।  এর ফলে প্রতি জেলায় আমরা সাত লাখের বেশি ভ্যাকসিন ডোজ রাখতে পারব।  আর উপজেলায় দুই লাখের বেশি ভ্যাকসিন ডোজ রাখতে পারব।  দেওয়ার জন্য ইতোমধ্যে প্রায় সাত হাজারের অধিক টিম তৈরি করা হয়েছে।  প্রত্যেক টিমে ছয় জন করে থাকবেন। '

এদিকে, ডাক্তার, নার্সসহ কোভিড মোকাবিলায় সম্মুখযোদ্ধাদের পাশাপাশি ভ্যাকসিন পাওয়ার ক্ষেত্রে ৫৫ এর বেশি বয়সীরা অগ্রাধিকার পাবেন। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, যারা ফ্রন্টলাইন কাজে সরাসরি যুক্ত যেমন, ডাক্তার, নার্স, ইঞ্জিনিয়ার, সাংবাদিক, সেনাবাহিনী, পুলিশ, ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কার এরা ভ্যাকসিন পাবেন।  ৫৫ এর বেশি বয়সী যারা আছেন তাদেরকে পর্যায়ক্রমে এ ভ্যাকসিন দেওয়ার চিন্তাভাবনা করছি। 

বিভিন্ন উৎস থেকে মোট ১১ কোটি ডোজ টিকা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে বলেও জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।