৮:২২ এএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১, রোববার | | ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩




সুফি সংগীত মানুষের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করে, ডিরি’র আন্তর্জাতিক ই-কনফারেন্সে বক্তারা

১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১:২০ এএম |


নকিব ছিদ্দিকী:

“সুফি সংগীত মানুষের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করে।  সুফি সংগীত মানুষের আত্মাকে আন্দোলিত করে ঐশ্বরিক ভালোবাসার দিকে ধাবিত করে।  মাইজভান্ডারী সুফি সংগীত প্রায়োগিকভাবেই এই ত্বরিকার অনুসারীদের আত্মশুদ্ধি অর্জনের মাধ্যমে পীর ও স্রষ্টার আনুগত্য লাভে সহায়তা করে থাকে। 

শনিবার ও রোববার দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউট (ডিরি) এর উদ্যোগে “সুফি সংগীত, মানবতাবোধ ও ঐশ্বরিক ভালোবাসা” শীর্ষক দুই দিন ব্যাপী আয়োজিত আন্তর্জাতিক ই-কনফারেন্সে বক্তারা এসব কথা বলেন।  দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা ও মাইজভান্ডার গাউছিয়া আহমদিয়া মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভান্ডারীর পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত এই ই-কনফারেন্সে মডারেটর ও সেশন চেয়ার ছিলেন ডিরি’র ম্যানেজিং ট্রাস্টি নায়েব সাজ্জাদানশীন সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভান্ডারী। 

ডিরি’র উদ্যোগে আয়োজিত এই ই-কনফারেন্সে ১৬টি দেশের, ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয় ও ৪টি রিসার্চ ইনস্টিটিউট থেকে মোট ৪২টি গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়।  ই-কনফারেন্সের সমাপনী দিন রোববার প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।  তিনি বলেন, ধর্মসাম্য রক্ষার জন্য বিধান ধর্মের সঙ্গে নৈতিক ধর্মের সংযোগ স্থাপন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  ধর্মাচরণের সঙ্গে আধ্যাত্মিকতার সংযোগ প্রয়োজন নতুবা ধর্ম শুধুই নিষ্প্রাণ আচার- আচরণে পরিণত হয়।  দুই দিন ব্যাপী এই ই-কনফারেন্সে গেস্ট অব অনার ছিলেন কক্সবাজারের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা আহমেদ, চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরিণ আখতার, সিন্ডিকেট মেম্বার প্রফেসর ড. খসরুল আলম কুদ্দুসী, তিউনেশিয়ার গবেষক ড. মনসুর আবদুল করিম আলমারুস, মিশরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক শায়খ মোহাম্মদ আল-মীর শাফি, মালয়েশিয়ার গবেষক ড. শারুম আহমেদ, ভারতের আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক সৈয়দ লিয়াকত মুঈনী ও ওমানের গবেষক ড. আহমেদ সেলিম আল সাঈদী। 

কী-নোট স্পিকার ছিলেন ভারতের আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. লতিফ হোসাইন শাহ কাজেমী ও মালয়েশিয়ার এশিয়া ই-ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. উ ইউ হক।  ই-কনফারেন্সে উপলক্ষে পৃথক বাণী দেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, সংস্কৃতি মন্ত্রী কেএম খালিদ এমপি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি ও দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভাÐারী।  ই-কনফারেন্স আয়োজক কমিটিতে ছিলেন কনভেনর ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. কেএম সাইফুল ইসলাম খান, কো-কনভেনর ভারতের বিশ্বভারতী বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মো. সিরাজুল ইসলাম, মালয়েশিয়ার বাইনারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন অধ্যাপক ড. আসিফ মাহবুব করিম, মেম্বার সেক্রেটারি চিটাগাং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক কাজী মো. সাইফুল আচফিয়া, সদস্য কাযী মুহাম্মদ মঈনউদ্দীন আশরাফী, ড. এএসএম বোরহান উদ্দিন, ড. মোহাম্মদ শেখ সাদী, ড. মো. জাফর উল্লাহ, ড. মোস্তফা কামাল, ড. আলী এফ এম রাজওয়ান, ড. এসএম মাসুম বাকিবিল্লাহ, মেহেদী হাসান, ড. মুহাম্মদ রেজাউল হোসাইন, মুহাম্মদ কামরুল ইসলাম, সৈয়দ মোহাম্মদ জালাল উদ্দীন আজহারী, ফারহানা রহমান কান্তা, শায়খ মুহাম্মদ মহিউদ্দীন আজহারী।  মেম্বার সেক্রেটারি কাজী মো. সাইফুল আচফিয়া ই-কনফারেন্স আয়োজনে সকল প্যানেল আলোচক ও টেকনিক্যাল টিমসহ সহযোগিতা করায় সকল অংশগ্রহণকারীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।