৮:২৪ পিএম, ১৬ মে ২০২২, সোমবার | | ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩




প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিলে মেয়র পারভেজ

সরকারের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে সহযোগিতা করছেন রাউজানের সাংবাদিকরা

১৩ এপ্রিল ২০২২, ০২:০৮ পিএম |


প্রদীপ শীল,রাউজান: রাউজান পৌরসভার মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ বলেছেন, ‘রাউজানের সংবাদকর্মীরা সত্য প্রকাশের মধ্য দিয়ে প্রতিটি তথ্য জাতির সামনে তুলে ধরেন। 

অপরাধীদের বিরুদ্ধে সত্য প্রকাশ ও রাউজানের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বর্তমান সরকারের সকল কর্মকান্ড তুলে ধরে সহযোগিতা করছেন। 

তিনি অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও রাউজানের সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরার আহবান জানান।  তিনি গতকাল ১২ এপ্রিল রাউজান প্রেসক্লাবের উদ্যোগে পবিত্র মাহে রমজানের তাৎপর্য র্শীষক আলোচনা সভা ও ইফতার ও মাহফিলে প্রধান অতিথি বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

রাউজান প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মীর আসলামের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল হারুন।  স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাউজান প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিউল আলম। 

বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিবেশ দূষণ প্রতিরোধ আন্দোলন কমিটির সাধারণ সম্পাদক এম.এন আবছার, রাউজান সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ইসহাক ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক সাবের হোসেন।  প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম. রমজান আলীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি এম বেলাল উদ্দিন, সাবেক সভাপতি প্রদীপ শীল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস.এম ইউসূফ উদ্দিন, সহ-সভাপতি সাহেদুর রহমান মোরশেদ, নেজাম উদ্দিন রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হাবিবী, অর্থ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক আমীর হামজা, প্রচার সম্পাদক কামরুল ইসলাম বাবু, সদস্য জিয়াউর রহমান, আরাফাত হোসাইন, শাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ, লোকমান আনছারী, সাংবাদিক রায়হান ইসলাম, প্রকৌশলী দিলু বড়–য়া জয়িতা, রতন বড়–য়া, যুবলীগ নেতা সবুজ দে ভানু, ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন, আরফানুল ইসলাম আবির, নাজিম উদ্দিন কালু, অন্তর পাল আকাশ প্রমূখ। 

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘পুলিশ-সাংবাদিক আবিচ্ছদ্য অংশ।  আমরা অপরাধীদের শাস্তির আওতায় এনে অপরাধ দমনে কাজ করি, সাংবাদিকরা অপরাধীদের অপকর্ম তুলে ধরে সামাজিক অবক্ষয় রোধে সহযোগিতা করেন। ’ পরে দেশ জাতির কল্যাণ কামনা করে দোয়া মুনাজাত পরিচালনা করেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মাওলানা বেলাল উদ্দিন মাইজভান্ডারী। 

 


keya