৩:১৮ এএম, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, বুধবার | | ১০ রজব ১৪৪৪




জমি সংক্রান্ত বিরোধ কোন নেই আস্তর করার বাঁশপুতা নিয়ে বাধা

২০ নভেম্বর ২০২২, ১২:০৩ এএম |


রাউজান প্রতিনিধিঃ

পাশাপাশি ভিটে।  দুটি পরিবারের বাড়ি ভিটা নিয়ে কারো বিরোধ নেই।  রয়েছে দুই ভিটের মধ্যখানে নির্দিষ্ট সীমানা প্রাচীর।  এই অবস্থায় অহেতুক ঝামেলায় জড়িয়ে একপক্ষ অন্য পক্ষের নির্মাণাধীণ ঘরের বাইরের দেয়ালের প্লেস্তার করতে দেবেনা।  টুনকো অজুহাতে।  এই ঘটনাটি পাশাপাশি দুটি প্রবাসী পরিবারের মধ্যে।  এমন ঘটনাটি ঘটেছে রাউজান উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের নুর মোহাম্মদ সিকদার বাড়িতে।  এই বাড়ির মৃত আলহাজ্ব আমিনুল হকের প্রবাসী ছেলে জিয়াউল হক জুয়েলের অভিযোগ গত ১৫ নভেম্বর জুয়েলের প্রতিবেশী আসলাম উদ্দীনের ছেলে আসিফ মিজান (২১), ইসলাম সিকদারের ছেলে আসলাম উদ্দিন (৫৩), হামিদুল হকের ছেলে মাহমুদুল হক (৪৫)’র বিরুদ্ধে রাউজান থানায় অভিযোগ দিয়েছেন তার মামা মো. নুরুন নবী।  অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, প্রবাসী জিয়াউল হক জুয়েল’র নির্মাণাধীন পাকা ভবনের নিয়োজিত শ্রমিকদের কাজ বন্ধ করার হুমকি দিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে।  একই সঙ্গে প্রবাসী জুয়েলকে ফোন করে বলেছে ঘরের পাশে থাকা দেওয়ালে কাজ করতে পারবে না।  কাজ করলে মারধর, কেটে ফেলার ও মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানো হবে বলে হুমকি দেওয়া হচ্ছে।  সরেজমিনে গিয়ে অভিযুক্তদের কাউকে পাওয়া যায়নি।  প্রবাসী জুয়েল’র নির্মাণাধীন ভবনের নির্মাণ শ্রমিক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমাকে মারার জন্য তেরে আসাসহ হুমকি ধমকি দেয়।  অন্যদিকে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার জন্য হুমকিসহ নির্মাণ শ্রমিকদের গালমন্দ ও হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী জুয়েলের চাচাতো ভাই ও নির্মাণাধীন ভবনের তত্তাবধায়ক মো. মোরশেদ।  তিনি বলেন, জমি সংক্রান্ত কোনো বিরোধ না থাকলেও দেয়ালের আস্তর কাজে বাধা প্রদান করার যৌক্তিকতা দেখছি না।  রাউজান থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) নাহিদ বলেন, জায়গা সংক্রান্ত কোনো বিরোধ নেই।  ভবনের আস্তর কারর জন্য প্রতিবেশীর জায়গায় বাঁশপুতার কারণে বাধা দিচ্ছে।  লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সরেজমিন পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  কাজের জন্য সাময়িকভাবে বাঁশপুতা অন্যায় কিছু দেখছিনা।  যেহেতু তাদের সীমানাপ্রাচীর ঠিক আছে। 


keya