৩:২২ এএম, ১৪ জুন ২০২১, সোমবার | | ৪ জ্বিলকদ ১৪৪২




রাউজানে ভোটার হাল নাগাদ তালিকাতে জীবিত ব্যক্তির মৃত্যু !

০৯ জুন ২০২১, ১১:২৩ এএম |


প্রদীপ শীল, রাউজানঃ
রাউজানে হাল নাগাদ ভোটার তালিকায় জীবিত এক ব্যক্তিকে মৃত্যু হয়েছে বলে ভোটার আইডি কার্ড বাতিল হওয়ায় বিপাকে পড়েছে। 

গতকাল ৮ জুন এমন পরিস্থিতে উপজেলা নির্বাচন অফিস এসে লিখিত সংশোধনীর আবেদন করেছেন ভূক্তভুগি এই ব্যক্তি। 

জানা যায়, উপজেলার ১৩নং নোয়াপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সিকদার বাড়ীর মৃত শাহ আলমের পুত্র মোঃ ইকবাল হোসেনকে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময় মৃত বলে দেখানো হয়। 

বাস্তবে সেই জীবিত।  তার জাতীয় পরিচয় পত্র (আই,ডি) নংÑ ১৫১৭৪৬৩৫৫৯১৩৭।  ইকবাল হোসেন জানান সেই চট্টগ্রাম নগরীর বহাদ্দার হাট এলাকার একজন ব্যবসায়ী। 

২১ এপ্রিল সিটি ব্যাংকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য ঋনের জন্য আবেদন করে।  আবেদন করার পর জাতীয় পরিচয় পত্র অনলাইনে আপলোড না হওয়ায় তিনি ঋনের টাকা নেওয়া সম্ভব হয়নি।  পরবর্তী রাউজান উপজেলা নির্বাচন অফিসে এসে নির্বাচন অফিসার অরুন উদয় ত্রিপুরার কাছে বিষয়টি অবহিত করেন।  নির্বাচন অফিসার সকল প্রকার ডাটাবেইজ যাছাই করে দেখতে পায় ভোটার তালিকায় ইকবাল হোসেনকে ভোটার হাল নাগাদ কালে মৃত দেখানো হয়েছে। 

বিপাকে পড়া ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন তার জাতীয় পরিচয় পত্র থেকে মৃত কর্তন করার জন্য হলফ নামা, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রদত্ত প্রত্যায়ন পত্র ও জাতীয়তা সনদের কপি সংযুক্ত করে জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন বিভাগের মহাপরিচালক বরাবরে আবেদন করেছেন। 

এ ব্যাপারে রাউজান উপজেলা নির্বাচন অফিসার অরুন উদয় ত্রিপুরা বলেন, গত ২০১৭ সালে ভোটার হালনাগাদ করার সময় ইকবাল হোসেনকে মৃত দেখানো হয়েছে।  ঐ সময়ে নোয়াপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে ভোটার হালনাগাদ কাজ করেন শিক্ষক জামাল উদ্দিন। 

ভোটার হালনাগাদ করার সময়ে সাইদুল্ল্যাহ নামে এক ব্যক্তি তাকে মৃত বলে তথ্য দেয়।  ভোটার হালনাগাদ করার সময় তথ্য ফরমে স্থানীয় মেম্বার জাহাঙ্গীর সিকদার ও তৎকালীন নোয়াপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মরহুম দিদারুল আলমের স্বাক্ষর রয়েছে। 

এ কারনে সেই ভোটার তালিকা থেকে বাদ পড়েছে।  মোঃ ইকবাল হোসেনের নাম ভোটার তালিকা থেকে মৃত কর্তন করার জন্য আবেদন করা হয়েছে।  জাতীয় পরিচয়পত্র থেকে মৃত কর্তন করার জন্য চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসের মাধ্যমে ঢাকায় প্রেরন করা হবে।