৭:০২ পিএম, ২৫ জুলাই ২০২৪, বৃহস্পতিবার | | ১৮ মুহররম ১৪৪৬




‘বাংলা ভাষা সঠিকভাবে ধারণ-লালন ও চর্চার মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার আহ্বান’

২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:৪৯ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় জাযুঘরের উদ্যোগে ৯দিন ব্যাপি (২০-২৮ ফেব্রুয়ারি) একুশের সংকলন ও দেশে দেশে বর্ণমালা প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। 

২০ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২ টায় চবি জাদুঘরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন এবং ভাষণ দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।  এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার এবং কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. সেকান্দর চৌধুরী। 

উপাচার্য মাতৃভাষা বাংলা প্রতিষ্ঠায় ১৯৫২ সালের ২১ ফ্রেব্রুয়ারি জীবন উৎসর্গকারী বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।  তিনি বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে বাংলাদেশই একমাত্র দেশ যেখানে বাঙালিরা তাদের জীবন দিয়ে মাতৃভাষা বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছে। 

উপাচার্য বলেন, আমাদের মাতৃভাষা বাংলাকে সঠিকভাবে হৃদয়ে ধারণ-লালন ও চর্চার মাধ্যমে সর্বস্তরে বাংলাভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করে বিশ্ব দরবারে সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারলেই ভাষা শহীদদের প্রতি সত্যিকারের ভালোবাসা ও সম্মান প্রদর্শন পূর্ণতা পাবে।  উপাচার্য এ ধরণের প্রদর্শনী আমাদের প্রাণপ্রিয় শিক্ষার্থী ও প্রজন্মের সন্তানদের বাংলাভাষা-সাহিত্য ও এর ইতিহাস সঠিকভাবে অনুধাবন করে নিজেদের সমৃদ্ধ করতে অনুপ্রেরণা যোগাবে এবং দেশের ভাষা-সাহিত্য-সংস্কৃতির বিকাশে অনন্য ভূমিকা রাখবে মর্মে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।  উপাচার্য ৯দিন ব্যাপি আয়োজিত এই প্রদর্শনীর সার্বিক সফলতা কামনা করে ফিতা কেটে এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন ঘোষণা করেন।  উপাচার্য অতিথিদের সাথে নিয়ে প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। 

অনুষ্ঠানে চবি জাদুঘরের পরিচালক প্রফেসর ড. ভূঁইয়া ইকবাল, চবি নজরুল গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক প্রফেসর ড. আমাতুল লায়লা জামান, চবি ইংরেজি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর মাইনুল হাসান চৌধুরীসহ সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 


keya