৫:৩৪ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার | | ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫




মাদকনির্ভরশীলতা এবং মানসিক রোগীদের চিকিৎসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৬:৩০ পিএম |


প্রেস বিজ্ঞপ্তি, মাদকনির্ভরশীলতা এবং মানসিক সমস্যাগ্রস্থ রোগীদের চিকিৎসায় মনোরোগ বিশেষজ্ঞ এবং এর পাশাপাশি কাউন্সিলিংয়ের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন।  চিকিৎসা কেন্দ্রে সঠিকভাবে ও নিয়মিত কাউন্সেলিংয়ে একজন রোগীর সুস্থতার সম্ভাবনা অনেকাংশে বৃদ্ধি করে।  শনিবার সকাল ১১ টায় রাজধানীর শ্যামলীতে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের সভাকক্ষে আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে চিকিৎসারত রোগীদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে “মাদকনির্ভরশীলতা ও মানসিক সমস্যাগ্রস্থ রোগীদের চিকিৎসা প্রক্রিয়া” বিষয়ক পারিবারিক সভায় এসব কথা বলেন অতিথিরা।  আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের কাউন্সেলর মেঘবতী সালমার সঞ্চালনায় সভায় বিশেষজ্ঞ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের আবাসিক মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ রাহানুল ইসলাম।  তিনি সভার মূল আলোচ্য বিষয় উপস্থাপনা করেন।  উপস্থাপনায় মাদকনির্ভরশীলতা কি, মাদকনির্ভরশীলতার সাথে মানসিক রোগের সর্ম্পক কি, মানসিক সমস্যার রোগীদের চিকিৎসায় কাউন্সেলিংয়ের বিভিন্ন দিক ও কেন্দ্রের কাউন্সেলিং সার্ভিস নিয়ে আলোচনা করেন।  এসময় তিনি বলেন, গবেষণা ভিত্তিক চিকিৎসা ব্যবস্থায় মাদকনির্ভরশীল এবং মানসিক রোগীদের জন্য দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা ও পরিবারের সহযোগিতা অপরিসীম।  চিকিৎসা পরবর্তীতে সুস্থ থাকতে কেন্দ্রের সাথে রোগীকে বিভিন্নভাবে সম্পৃক্ত থাকা প্রয়োজন এবং একই সাথে রোগীর সমস্যার পর্যায়নুযায়ী দীর্ঘমেয়াদে চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা নিলে সুস্থ থাকার হার অনেক বৃদ্ধি পায়।  সভায় আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের কেন্দ্র ব্যবস্থাপক ফারজানা ফেরদৌসসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। 


keya